“আইপিএল ছাড়া অন্য কোনো লিগ না খেলা আইসিসি স্তরে ভারতের ক্ষতি করে” – রবিন উথাপ্পা

Robin Uthappa
Robin Uthappa. ( Image Source: Instagram )

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে পরপর দুটি টি-২০ ম্যাচে পরাজিত হয়েছে ভারত। দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে রোভম্যান পাওয়েলের নেতৃত্বাধীন দলের বিরুদ্ধে হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বাধীন দলের হারের পর প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রবিন উথাপ্পা আইসিসি টুর্নামেন্ট এবং দ্বিপাক্ষিক খেলায় ভারতের ব্যর্থতা নিয়ে মুখ খুলেছেন।

রবিন উথাপ্পা বলেছেন যে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) বাদে অন্য কোনো ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ না খেলার কারণে আইসিসি টুর্নামেন্টে ব্যৰ্থ হচ্ছে ভারত। এছাড়াও তিনি বলেছেন যে অন্যান্য দেশের খেলোয়াড়রা আইপিএল খেলার মাধ্যমে ভারতীয় ব্যাটার এবং বোলারদের ব্যাপারে অনেক কিছু জানতে পারেন।

জিও সিনেমাকে রবিন উথাপ্পা বলেন, “আমি অবশ্যই আইপিএলকে অনেক গুরুত্ব দিই, তবে আমি মনে করি ভারতীয় খেলোয়াড়রা অনেক কিছু মিস করে, বিশেষ করে আইসিসি টুর্নামেন্টে, কারণ আমরা বিশ্বের অন্য কোনো জায়গায় অন্য কোনও লিগ খেলি না এবং আমি মনে করি হ্যাঁ, আইপিএলকে একটি সত্তা হিসাবে রক্ষা করা ভালো, কিন্তু আমি মনে করি আইসিসি স্তরে এটি আমাদের জন্য ব্যয়বহুল হয়ে উঠেছে।”

তিনি আরও বলেন, “আমি মনে করি যে দক্ষ খেলোয়াড়রা আমাদের ভারতীয় বোলারদের বিরুদ্ধে দ্বিপাক্ষিক খেলায় বা আইসিসি টুর্নামেন্টে সুবিধা পায়। ৩,৪,৫,৬ বছর ধরে আইপিএলে তাদের বিরুদ্ধে নেটে খেলার মাধ্যমে তারা অনেক এক্সপোজার পায়। সুতরাং বোলার কি করে তা আপনি ইতিমধ্যেই জানেন; আপনি ইতিমধ্যেই জানেন ব্যাটার কি করে। তাই আপনার কাছে অনেক তথ্য আছে। কিন্তু আমাদের ব্যাটার এবং বোলারদের কাছে খুব বেশি তথ্য থাকে না।”

দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচে ২ উইকেটে জয় পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

প্ৰথম টি-২০ ম্যাচে মাত্র ৪ রানে পরাজিত হয়েছিল ভারতীয় দল। এরপর দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচেও জিততে ব্যর্থ হয়েছে হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বাধীন দল। প্ৰথমে ব্যাটিং করে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫২ রান করতে সক্ষম হয়েছিল ভারত। দলের হয়ে সবথেকে বেশি রান করেছিলেন তিলক ভার্মা। তিনি ৫টি চার এবং ১টি ছয় সহ ৪১ বলে ৫১ রান করেছিলেন। ইশান কিষান ২৩ বলে ২৭ রান করতে সক্ষম হয়েছিলেন। অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া ১৮ বলে ২৪ রান করেছিলেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ বল বাকি থাকতেই ম্যাচটি জিতে নিয়েছিল। নিকোলাস পুরান ৬টি চার এবং ৪টি ছয় সহ ৪০ বলে ৬৭ রানের একটি দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলেছিলেন। তাকে এই ম্যাচের ম্যাচসেরার পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল।