বাংলা

স্যাম কারান আসায় পাঞ্জাবের প্লে অফে ওঠার আশা বেড়েছে: সুরেশ রায়না

আইপিএলের নিলামের ইতিহাসের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় হয়ে উঠেছেন কারান

Sam Curran
Sam Curran. (Photo by Cameron Spencer/Getty Images)

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ১৬তম সংস্করণের নিলাম সফলভাবে শুক্রবার সন্ধ্যায় কোচিতে শেষ হয়েছে এবং দশটি দলই তাদের পছন্দসই খেলোয়াড়ের জন্য বিড করে শক্তিশালী স্কোয়াড তৈরী করতে পেরেছে। নিলামের সময় লাইমলাইটে উঠে এসেছিলেন ইংলিশ খেলোয়াড়রা কারণ বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি থেকে বড় চুক্তি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছিলেন। হ্যারি ব্রুক, স্যাম কারান, বেন স্টোকসদের জন্য মোটা অংকের অর্থ ব্যয় করতে দ্বিধা করেনি সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ, পাঞ্জাব কিংস এবং চেন্নাই সুপার কিংসের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি।

বিশ্বকাপজয়ী খেলোয়াড়রা নিলামে একাধিক ফ্র্যাঞ্চাইজিকে আকৃষ্ট করেছিলেন এবং অনেকেই আশ্চর্যজনক বিডিং যুদ্ধের কারণ হয়ে উঠে হয়েছিলেন। শুধু এই বছরের নিলামেই নয়, সমগ্র আইপিএলের নিলামের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি অর্থ উপার্জনকারী খেলোয়াড় হয়ে উঠেছেন স্যাম কারান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হওয়া কারান পিবিকেএস দ্বারা ১৮.৫০ কোটি টাকার রেকর্ড অঙ্কে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন।

দেখতে হবে কীভাবে পাঞ্জাব কিংস কারানকে ব্যবহার করে: সুরেশ রায়না

২০২০ ও ২০২১ সংস্করণে চেন্নাই সুপার কিংসের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন কারান, যদিও আইপিএল কেরিয়ার শুরু করেছিলেন ২০১৯-এ পাঞ্জাব-ভিত্তিক ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে। ফ্র্যাঞ্চাইজি আশা করবে তাদের প্রথম খেতাব জয়ের ক্ষেত্রে কারা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবেন। সুরেশ রায়না বিশ্বাস করেন যে স্যাম কারানের আগমন পাঞ্জাব কিংসের প্লে অফে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিয়েছে।

“সে পাঞ্জাবের হয়ে তার প্রথম আইপিএল খেলেছে। তারপর তাকে লুঙ্গি ড্যান্স করতে দেখা গেলেও এখন শিখরকে পাশে রেখে পাঞ্জাবে ভাংড়া করবে। স্যাম কারান টুইট করেছে যেখানে তার আইপিএল কেরিয়ার শুরু করেছিল সেখানে ফিরে এল। এটি একটি চ্যালেঞ্জ হবে, কিন্তু আমি মনে করি সে একজন ম্যাচ বিজয়ী, এবং আমাদের দেখতে হবে কীভাবে পাঞ্জাব কিংস তাকে ব্যবহার করে,” জিও চিনেমার আইপিএল নিলাম সংক্রান্ত অনুষ্ঠানে রায়না বলেছেন।

পাঞ্জাব কিংস কখনও আইপিএল শিরোপা জেতেনি। নগদ-সমৃদ্ধ ইভেন্টের ১৫টি সংস্করণে, তারা মাত্র দুবার প্লে-অফে উঠতে সক্ষম হয়েছিল, যার মধ্যে তারা ২০১৪ সালে একবার ফাইনালে উঠেছিল। স্যাম কারানকে স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করার মাধ্যমে তাদের স্বপ্ন এখন অর্জনযোগ্য বলে মনে হচ্ছে। তাদের বোলিং লাইনআপের পাশাপাশি মিডল অর্ডার ব্যাটিং ইউনিটও শক্তিশালী হবে কারান আসায়।

“তাদের রাবাডা, আর্শদীপ সিং, হারপ্রীত ব্রার এবং রাহুল চাহার আছে – তাদের বোলিং লাইন আপ ভালো কিন্তু স্যাম কারানের দলে আসাটা স্কোয়াডে একটা ভালো সংযোজন হবে। পাঞ্জাব কিংসের একটা ইতিবাচক পরিবর্তন দরকার ছিল এবং স্যাম কারানের দলে আসা আমার মনে হয় প্লে অফে ওঠার আশা বাড়িয়ে দিয়েছে।”