বাংলা

“সেই শিখা আর ততোটা উজ্জ্বলভাবে জ্বলছে না” – ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন কিংবদন্তী এবি ডি ভিলিয়ার্স  

আইপিএলের দ্বিতীয় পর্যায়ে আরসিবির হয়ে শেষবার তাঁকে খেলতে দেখা গিয়েছিল

AB de Villiers
AB de Villiers. (Photo by Anthony Au-Yeung/Getty Images)

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার এবি ডি ভিলিয়ার্স সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করার ঘোষণা করেছেন। শুক্রবার, ১৯শে নভেম্বর, তিনি টুইটারে একটি পোস্টের মাধ্যমে তাঁর সিদ্ধান্তের কথা জানান। ডি ভিলিয়ার্স ২০০৩ সালে প্রতিযোগিতামূলক ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিষেক করেছিলেন এবং তারপর ১৮ বছরেরও বেশি সময় ধরে খেলছিলেন। তাঁর পোস্টে ডি ভিলিয়ার্স জানিয়েছেন যে তিনি সাফল্য তাড়া করার ক্ষুধা হারিয়েছেন।    

বিশুদ্ধ আনন্দ এবং লাগামহীন উৎসাহের সাথে ক্রিকেট খেলেছি: এবি ডি ভিলিয়ার্স

তাঁর বর্ণাঢ্য কেরিয়ারে, তিনি ১৪১টি প্রথম-শ্রেণীর, ২৬৩টি লিস্ট এ এবং ৩৪০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ৫৯টি সেঞ্চুরি এবং ১৯২টি অর্ধশতকের সাহায্যে ৩১০০০-এর উপর রান করেছেন। প্রথম-শ্রেণীর এবং লিস্ট এ ম্যাচে ১০০০০ রান পার করলেও, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১০০০০ রান করার মাইলফলক থেকে ৫৭৬ রান দূরে থামতে হল তাঁকে। ৩৭ বছর বয়সী এবি ডি ভিলিয়ার্স বলেছেন যে খেলা থেকে তাঁর বুটগুলিকে সুন্দরভাবে ঝুলিয়ে রাখার এটিই উপযুক্ত সময়। 

এবি ডি ভিলিয়ার্স টুইটারে গিয়ে লিখেছেন, “এটি একটি অবিশ্বাস্য যাত্রা ছিল, তবে আমি সমস্ত ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার বড় ভাইদের সাথে পিছনের উঠোনের ম্যাচগুলি থেকে আজ পর্যন্ত আমি বিশুদ্ধ আনন্দ এবং লাগামহীন উৎসাহের সাথে খেলাটি খেলেছি। এখন, ৩৭ বছর বয়সে, সেই শিখা আর ততোটা উজ্জ্বলভাবে জ্বলছে না।” 

ডি ভিলিয়ার্সকে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে শেষবার ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ২০২১ সংস্করণে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের হয়ে খেলতে দেখা গিয়েছিল। ভারতে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের প্রথম পর্বে তিনি বেশ কিছু ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলে দলের জয়ে অবদান রেখেছিলেন। তবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর্বে তিনি ফর্ম হারয়েছিলেন।  

এবি ডি ভিলিয়ার্স ১৮৪টি আইপিএল ম্যাচে ডি ভিলিয়ার্স তিনটি সেঞ্চুরি এবং ৪০টি হাফ সেঞ্চুরি সহ ৫১৬২ রান করেছেন। কয়েক বছর ধরে, তিনি আরসিবির প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলির সাথে বেশ কয়েকটি দরকারী পার্টনারশিপ গড়ে তুলেছিলেন। এছাড়াও তিনি দিল্লী ডেয়ারডেভিলস, বর্তমানে যারা দিল্লী ক্যাপিটালস, তাদের হয়েও তিনটি মরসুম খেলেছিলেন আইপিএলে।  

২০১৮ সালে ডি ভিলিয়ার্স আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। যদিও পরবর্তীকালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর প্রত্যাবর্তনের সম্ভাবনা তৈরী হয়েছিল, তবে তিনি প্রোটিয়াদের হয়ে আর ফিরে আসেননি। ডি ভিলিয়ার্স পিএসএল, সিপিএল এবং বিগ ব্যাশ লিগেও বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলেছেন।