বাংলা

“একটি সাধারণ টুইট” – তাঁর বিসিসিআই সভাপতিত্ব ছাড়ার জল্পনায় বিস্মিত সৌরভ

গুঞ্জন উঠেছিল সৌরভ হয়তো রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন

Sourav Ganguly
Sourav Ganguly. (Photo by Debajyoti Chakraborty/NurPhoto via Getty Images)

প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী বলেছেন অবাক হয়েছেন কারণ তিনি মনে করেন যে একটি সাধারণ টুইটের ফলে সবাই বিশ্বাস করতে শুরু করেছিল যে তিনি বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)-এর সভাপতির পদ থেকে সরে যাচ্ছেন। বুধবার, ১লা জুন, প্রাক্তন বাঁ-হাতি ব্যাটার তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলগুলিতে একটি ধন্যবাদ নোট জারি করে লিখেছিলেন। যাতে তিনি উল্লেখ করেছিলেন যে তিনি নতুন কিছু শুরু করতে প্রস্তুত যা অনেকের জন্য সহায়ক হবে।

নেটিজেনরা অনুমান করেছিল যে তিনি রাজনীতিতে প্রবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছেন এবং তাই জাতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতির পদ থেকে সরে যেতে পারেন। পরের দিন গাঙ্গুলী স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি বিসিসিআই সভাপতি হিসাবে কাজ চালিয়ে যাবেন, এবং টুইটটি ছিল তাঁর নতুন ব্যবসায়িক উদ্যোগ, একটি নতুন বিশ্ব শিক্ষা অ্যাপ সম্পর্কিত।

আমি বিশ্বব্যাপী একটি নতুন শিক্ষা অ্যাপ চালু করেছি: সৌরভ গাঙ্গুলী

“আমি বিশ্বব্যাপী একটি নতুন শিক্ষা অ্যাপ চালু করেছি। এটি বিশ্বব্যাপী চালু করা একটি শিক্ষামূলক অ্যাপ। আমি অবাক হয়েছিলাম (অনুমানের জন্য)। এটি একটি সাধারণ টুইট ছিল, পদত্যাগের কোনও উল্লেখ নেই, কিছুই নয় তেমন,” গাঙ্গুলীকে হিন্দুস্তান টাইমস দ্বারা উদ্ধৃত করা হয়েছে।

গাঙ্গুলীর টুইট সংক্রান্ত জল্পনা এতটাই ছড়িয়ে গিয়েছিল যে বিসিসিআই সচিব জয় শাহকে এগিয়ে আসতে হয়েছিল এবং স্পষ্ট করতে হয়েছিল যে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক বিসিসিআইয়ের পদ ছাড়ছেন না। সম্প্রতি সৌরভের কলকাতার বাসভবনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে তাঁর কলকাতার বাসভবনে একটি বৈঠক হয় এবং সেই কারণেই সম্ভবত ভক্তরা বিশ্বাস করতে শুরু করেছিলেন যে তিনি রাজনীতিতে যোগ দিতে চলেছেন।

গাঙ্গুলীকে ২০১৯ সালের অক্টোবরে বিসিসিআই-এর সভাপতি নিযুক্ত করা হয়েছিল৷ তাঁর মেয়াদকালে তিনি নিশ্চিত করেছিলেন যে কোভিডের সঙ্কটের মাঝেও ২০২০ এবং ২০২১ আইপিএল যেন সম্পূর্ণ চেহারায় আয়োজিত হয়।

তা ছাড়া, ভারতীয় দল দেশে ও বিদেশে বেশ কিছু সিরিজে তাদের আধিপত্য অব্যাহত রেখেছিল। আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৯-২০২১ চক্রের ফাইনালেও পৌঁছেছিল ভারত।