আগামী আইপিএলে বোলারদের ক্ষেত্রে চালু হতে চলেছে নতুন নিয়ম

IPL trophy
IPL trophy. (Photo Source: Twitter)

আগামী আইপিএলে বোলারদের ক্ষেত্রে আলাদা সুবিধা দেওয়ার ব্যবস্থা করছে ভারতীয় বোর্ড। আনতে চলেছে এক নতুন নিয়ম। 

গতবছর থেকে আইপিএলে ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নেওয়ার ব্যবস্থা চালু হয়েছে। যা এই বছরেও বিদ্যমান থাকছে। আগের বছরের মতোই টসের আগে নির্দিষ্ট দলের ক্যাপ্টেনকে ইম্প্যাক্ট প্লেয়ারদের তালিকা জানিয়ে দিতে হবে। গোটা ম্যাচটির মধ্যে যেকোনো একজন প্লেয়ারকে ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।

মঙ্গলবার দুবাইয়ের শুরু হয়ে গেছে, আইপিএলের নিলাম। তার আগেই নতুন নিয়ম আইপিএলে বলবৎ হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এখন থেকে এক ওভারে যে কোন বোলার দুটি করে বাউন্সার দিতে সক্ষম হবে। ব্যাটসম্যান এবং বোলারদের মধ্যে নির্দিষ্ট ভারসাম্য বজায় রাখতেই বোর্ডের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। আগামী বছর অর্থাৎ ২০২৪ আইপিএল সিজেনে এই নতুন নিয়ম লাঘু করার কথা প্রস্তাবিত হয়েছে। ২০২৩-২৪ মরশুমের সৈয়দ মুস্তাক আলী ট্রফিতে এই নিয়ম বোর্ডের পক্ষ থেকে পরীক্ষা করা হয়ে গিয়েছে। বোর্ডের তরফে জানা যাচ্ছে, ভারতের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতায় বোলারদের বাড়তি কিছুটা সুবিধা দেওয়ার জন্যই এই নতুন নিয়মের প্রবর্তন। যদিও এক্ষেত্রে বাটারদের কিছুটা অসুবিধা হয়েছে বলেও মনে করা হচ্ছে।

সৌরাষ্ট্রের অভিজ্ঞ বোলার জয়দেব উনাদকাট এই নিয়মটিকে সবার আগে স্বাগত জানিয়েছেন।

এবারের নিলামের এই ফাস্ট বোলারের নূন্যতম মূল্য ছিল ৫০লক্ষ টাকা। তিনি একটি বিবৃতি দিয়ে স্পষ্ট করেছেন যে, “এক ওভারে দুটি বাউনসার যেকোনো ফাস্ট বোলারের কাছে খুবই সুবিধাজনক একটি নিয়ম। ক্রিকেটিয় নিয়মের ক্ষেত্রে এই পরিবর্তন বড় প্রভাব তৈরি করতে সক্ষম হবে। বোলার হিসাবে এই নিয়মের গুরুত্ব আমার কাছে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।”

 তিনি উদাহরণস্বরূপ এ উল্লেখ করেন যে, ” আগের নিয়ম একটি ধীরগতির বাউন্সারও যদি বোলার দেয়, তাহলে ব্যাটসম্যান পরবর্তীতে নিশ্চিত থাকে যে আর কোনও বাউন্সার আসছে না। কিন্তু বর্তমানে এই নিয়ম স্বাভাবিকভাবেই বোলারদের বাড়তি অস্ত্র হিসাবে কাজ করবে। ডেথ ওভারে ইয়র্কারের পাশাপাশি বর্তমানে বাউন্সারের গুরুত্বও অপরিসীম।”

যদিও ইমপেক্ট প্লেয়ার এর নিয়মটি একইভাবে বহাল থাকছে। যে নিয়মের অধীনে প্লেয়িং ইলেভেন ছাড়াও দলকে চারটি প্লেয়ারের বিকল্প তালিকাও তৈরি করতে হবে। যেকোনো দল তাদের ইম্প্যাক্ট প্লেয়ার হিসেবে যেকোনো একটি বিকল্প বেছে নিতে পারবে। যদিও বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই নিয়মের ফলে অলরাউন্ডারের ভূমিকা কিছুটা খর্ব হয়েছে।