বাংলা

“এখন ক্রিকেটবিশ্বের নিয়ন্ত্রণ ভারতের হাতেই”, ভারতের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য ইমরান খানের

ইমরানের অভিযোগ মূলত ভারতের কথাতেই বাকি দেশগুলি চলে

Imran Khan
Imran Khan. (Photo by Karwai Tang/WireImage)

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড পাকিস্তান সফর বাতিল করার পর থেকেই বারবার উঠে আসছে ভারতের নাম। অভিযোগ এসেছে সংশ্লিষ্ট দুটি দেশের সফর বাতিল করার পিছনে রয়েছে ভারতের প্রত্যক্ষ মদত। যা নিয়ে আরো তিক্ত হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান দুই দেশের মধ্যবর্তী সম্পর্ক। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড ও পাকিস্তানের ক্রিকেট মহল থেকে বারবার ভারতকে আক্রমণ করায় কয়েকদিন আগে ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে কড়া বিবৃতি দিয়ে জানানো হয় পাকিস্তানের যে কোন ইস্যুতে ভারতকে জড়ানোর চেষ্টা অত্যন্ত অপেশাদার ও অনভিপ্রেত। এবার এই ইস্যুতে ইমরান খান অভিযোগ করলেন ভারত অর্থ দিয়ে বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ করছে।   

গত সেপ্টেম্বর মাসে পাকিস্তান সফরে গিয়ে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামার কয়েক ঘণ্টা আগে সফর স্থগিত করে দেশে ফিরে যায় নিউজিল্যান্ড। সেই ঘটনার কয়েকদিন পরই পাকিস্তান সফর বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয় ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। এই বিষয়টি প্রসঙ্গে ‘মিডল ইস্ট আই’ নামক এক গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিরক্তি প্রকাশ করেন পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খান। 

ইমরানের দাবি, পাকিস্তান সফর বাতিল করে ইংল্যান্ড নিজেরাই নিজেদেরকে ছোট করেছে। সেই সাথে ইমরান অভিযোগ করেছেন, এমন আচরণ কোনো দলই ভারতের সাথে করার সাহস পাবে না, যার একমাত্র কারণ হলো ভারতের অর্থ আছে।

তিনি বলেন, “ইংল্যান্ড নিজেদেরকেই ছোট করেছে। পাকিস্তানের সাথে ইংল্যান্ড যা করল, তা কেউ ভারতের সাথে করার সাহস পেত না। কারণ তারা জানে যে অর্থ একটা বড় ইস্যু এবং ভারত তাদের জন্য অনেক টাকার যোগান দিতে পারে।”

মূলত ভারতের কথাতেই বিশ্বক্রিকেট চালিত হয়

ইমরানের আরো দাবি, বর্তমানের খেলোয়াড় ও ক্রিকেট বোর্ডগুলো ক্রিকেট খেলার চেয়ে অর্থকেই বেশি গুরুত্ব দেয় এবং এ কারণেই অর্থ দিয়ে ক্রিকেটকে নিয়ন্ত্রণ করার সুযোগ পাচ্ছে ভারত।

ইমরানের মতে, “এখন ক্রিকেট বোর্ড ও খেলোয়াড়দের জন্য বড় খেলোয়াড় হলো অর্থ। ভারত ক্রিকেটবিশ্বের ধনীতম বোর্ড। তাই মূলত ভারতের কথাতেই বিশ্বক্রিকেট চালিত হয়। এখন ক্রিকেটবিশ্বের নিয়ন্ত্রণ ভারতের হাতেই। তাদের মর্জিমাফিকই ক্রিকেটের যাবতীয় সিদ্ধান্ত নির্ধারণ করা হচ্ছে।”

তিনি আরো যোগ করেছেন, “কোভিড-১৯ লকডাউনের মাঝেও পাকিস্তান জুলাইতে ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল। ইংল্যান্ডের নিজেদের জিজ্ঞাসা করা উচিত তারা যে কাজটা করেছে সেই কাজটা তাদের সাথে কেউ করলে তাদের কেমন লাগত।”

নিউজিল্যান্ডের সফর বাতিল করার সিদ্ধান্তেরও সমালোচনা করেন ইমরান। শোনা যায় বোমা ফাটা সংক্রান্ত খবরে বিভ্রান্ত হয়েই সফর বাতিল করে কিউইরা। ওই খবরকে সম্পূর্ণ গুজব হিসেবে উড়িয়ে দিয়ে সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, “বিদেশি দলদের নিরাপত্তা দেওয়ার চিন্তা আমাদের সবচেয়ে বেশি। পাকিস্তানে কিছু ঘটলে তার জন্য দায়ী থাকব আমরাই। কিছু যাতে না ঘটে সেই ব্যাপারে নজরদারি করার জন্য আমাদের কাছে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ইন্টেলিজেন্স এজেন্সি আছে।”